সংগীত তারকা আইয়ুব বাচ্চুকে হারিয়ে শোকে বিহ্বল দেশ। পাশাপাশি সংগীত অঙ্গন শোকে মুহ্যমান। আইয়ুব বাচ্চুর সমসাময়িক শিল্পী ও ব্যান্ড তারকা জেমস প্রথম আলোকে বলেছেন, ‘তিনি বাংলা সংগীতের কিংবদন্তি। আমাদের মধ্যে একটা প্রতিযোগিতা ছিল, সেটা ভালো গান তৈরির প্রতিযোগিতা। কোনো ঈর্ষা ছিল না।’

আইয়ুব বাচ্চুর সঙ্গে জেমসের পরিচয় ১৯৮০ সালের শুরুর দিকে। এরপর দীর্ঘ ৪০ বছরের সম্পর্ক। জেমস বলেন, ‘এই দীর্ঘ সময় আমরা একে অপরের সুখে-দুঃখে, মানে-অভিমানে কাটিয়েছি। একসঙ্গে প্রচুর শো করেছি, গান করেছি, দেশ-বিদেশে ঘুরেছি। তিনি অকস্মাৎ এভাবে আমাদের সবাইকে ছেড়ে চলে যাবেন, খবরটা মানতে পারছি না। রকসংগীতে তাঁর যে অবদান, সেটা এই জাতি চিরদিন মনে রাখবে বলেই বিশ্বাস করি।’

ব্যক্তি আইয়ুব বাচ্চুর সঙ্গে সম্পর্ক প্রসঙ্গে জেমস বলেন, ‘বাচ্চু ভাই অত্যন্ত উদার মনের মানুষ ছিলেন। তাঁর সঙ্গে আমার যে সম্পর্ক, সেটা আসলে বলে বোঝানো যাবে না। বিভিন্ন সময়ে কারণে-অকারণে আমরা একজন আরেকজনের পাশে সব সময় ছিলাম। সম্পর্কের এই গভীরতার কথা কখনো বোঝাতে পারব না। কেউ হয়তো জানবেও না যে আমাদের একের হৃদয়ে অপরের জন্য কতটা জায়গা রাখা আছে। আমাদের মধ্যে একটা সুস্থ প্রতিযোগিতা ছিল। সেটা ভালো গান তৈরির প্রতিযোগিতা। সেখানে কোনো ঈর্ষা ছিল না। যখন যেখানে দেখা হতো, একে অপরকে জড়িয়ে ধরেছি পরম ভালোবাসায়।’

বরগুনা থেকে মোবাইলে প্রথম আলোর সঙ্গে কথা বলেন জেমস। একটি কনসার্টে যোগ দিতে তিনি সেখানে অবস্থান করছেন। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বরগুনা জেলা স্টেডিয়ামের সেই কনসার্টটি তিনি উৎসর্গ করেছেন সদ্যপ্রয়াত শিল্পী আইয়ুব বাচ্চুকে।

সূত্র – প্রথম আলো