নভেম্বর আসতে আর মাত্র কয়েক দিন বাকি। প্রতিবছর উৎসবপ্রেমী মানুষ এ সময়টার অপেক্ষায় থাকেন। কিন্তু তাঁদের জন্য একটি দুঃসংবাদ আছে। এ বছর হচ্ছে না বেঙ্গল উচ্চাঙ্গসংগীত উৎসব। তবে লোকসংগীতের উৎসব ‘ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ফোক ফেস্ট’ ও সাহিত্যোৎসব ‘ঢাকা লিট ফেস্ট’ হচ্ছে যথারীতি।

২০১২ সাল থেকে নভেম্বরের শেষ সপ্তাহে আয়োজিত হয়ে আসছিল বেঙ্গল উচ্চাঙ্গসংগীত উৎসব। গত বছর ভেন্যু জটিলতায় উৎসবটি ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে হয়। গতকাল উৎসবের আয়োজক বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক লুভা নাহিদ চৌধুরী জানান, এ বছর উৎসবটি হচ্ছেই না। তিনি বলেন, ‘২২ থেকে ২৬ নভেম্বর উৎসবটি করার প্রাথমিক পরিকল্পনা ছিল। কিন্তু সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে এ বছর পরিকল্পনা থেকে আমরা পিছিয়ে এসেছি। তা ছাড়া প্রস্তুতিরও ঘাটতি ছিল।’

লুভা নাহিদ চৌধুরী বলেন, ‘উৎসবটি আগামী বছরের ফেব্রুয়ারির প্রথম দিকে করতে চাইছি আমরা।’ ৭ থেকে ১১ ফেব্রুয়ারি পাঁচ দিনব্যাপী সপ্তম বেঙ্গল উচ্চাঙ্গসংগীত উৎসব আয়োজনের জন্য তাঁরা এখন ভেন্যু খুঁজছেন। ইতিমধ্যে তাঁরা ঢাকার বাংলাদেশ আর্মি স্টেডিয়ামের জন্য আবেদন করেছেন।

এদিকে এ বছরের নভেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহে হচ্ছে ঢাকা লিট ফেস্ট। ৮ থেকে ১০ নভেম্বর অষ্টমবারের মতো এই আয়োজন হচ্ছে। ২০১১ থেকে শুরু হয়ে ২০১৪ সাল পর্যন্ত উৎসবটি ‘হে ফেস্টিভ্যাল’ নামে পরিচিত ছিল। এবারও হচ্ছে বাংলা একাডেমিতে। উৎসবে অংশগ্রহণের জন্য ইতিমধ্যে রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।

প্রতিবছর এই উৎসবে নানা দেশের সাহিত্যিক, ইতিহাসবিদ, গবেষকের পাশাপাশি অনেক শিল্পীও অংশ নেন। উৎসবের অন্যতম পরিচালক সাদাফ সায বলেন, ‘এবারও বিশ্বের নানা প্রান্তের গুণী কিছু মানুষ আসবেন। দু-এক দিনের মধ্যেই উৎসবের ওয়েবসাইটে এবারের চমকগুলো জানা যাবে। আর পূর্ণ সূচি মিলবে ৪ নভেম্বর সকালের সংবাদ সম্মেলনে।’

এ বছরও ঢাকার আর্মি স্টেডিয়ামে হচ্ছে ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ফোক ফেস্ট। এবারেরটি চতুর্থ আয়োজন, প্রথমটি হয় ২০১৫ সালে। আপাতত আয়োজকেরা আনুষ্ঠানিকভাবে উৎসবের তারিখ জানাতে চাইছেন না। তবে অন্তত দুজন অংশগ্রহণকারী শিল্পী মারফত জানা গেছে, ফোক ফেস্টের সম্ভাব্য তারিখ ১৫ থেকে ১৭ নভেম্বর।

সূত্র – প্রথম আলো